রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৫:০৭ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
gfgf আবারো বিয়ে করলেন একসময়ের জনপ্রিয় নায়িকা শমী কায়সার ভিপি নুরুল হক নুরকে গ্রে’প্তার না করলে দেশ অচলের ঘোষণা ছাত্রলীগের ভিপি নুরুল হক নুরকে গ্রে’প্তার না করলে দেশ অচলের ঘোষণা ছাত্রলীগের ধর্ষক নুরদের গ্রেপ্তার করা হয়নি কেন? প্রশাসন তাদের কেন ভয় পায়? প্রশ্ন ছাত্রলীগ সেক্রেটারির শেখ হাসিনাকে নিয়ে ধৃষ্টতা দেখালে ওইসব আন্দোলনকারীকে পিষে ফেলব: সনজিত চন্দ্র দাসের হুঁশিয়ারি যেখানে পাবেন এই ধ’র্ষক নুরু গংদের প্রতিহত করুন: ছাত্রলীগ সভাপতি জয় নুরু গংদের দ্বারা শুরু হওয়া ধর্ষণ সারা দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়ছে: ছাত্রলীগ সভাপতি যেখানে পাবেন এই ধ’র্ষক নুরু গংদের প্রতিহত করুন: ছাত্রলীগ সভাপতি জয় ক্ষমতা দেওয়া এবং টিকিয়ে রাখার মালিক একমাত্র আল্লাহ তাআলা : ওবায়দুল কাদের
আগামী ২১ জুন সূর্যগ্রহ’ণের দিনই ধ্বং’স হতে চলেছে পৃ’থিবী?

আগামী ২১ জুন সূর্যগ্রহ’ণের দিনই ধ্বং’স হতে চলেছে পৃ’থিবী?

২০২০ সালটি শুরু থেকেই ভ’য়ঙ্কর হয়ে উঠেছে। এখন একটি তত্ত্ব দা’বি করছে, আগামী সপ্তাহের মধ্যেই পৃথিবী শেষ হয়ে যাবে। এই অদ্ভুত ধারণাটি একটি প্রাচীন ক্যালেন্ডার মায়ার ওপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছে।

তবে গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার সারা বিশ্বে ব্যবহৃত হয়। গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডারটি ১৫৮২ সালে প্রথম অস্তিত্ব নিয়ে আসে। আগে বিভিন্ন ধ’রনের ক্যালেন্ডার ব্যবহৃত হতো। এই তালিকায় মায়া ক্যালেন্ডার এবং জুলিয়ান ক্যালেন্ডারও রয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বিশ্বা’স করেন যে, গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার সূর্যের চারদিকে পৃথিবীর ঘোরার সময়কে আরো ভালোভাবে প্রতিফলিত করে। জুলিয়ান ক্যালেন্ডার এই কক্ষপথটি সঠিকভাবে প্রতিফলিত করে না, তাই প্রতি বছর ১১ দিন কমতে থাকে।

ষ’ড়যন্ত্র তত্ত্ব অনুসারে, আম’রা যদি প্রতি বছর এই ১১ দিন হ্রাসের গণনা করি তবে বাস্তবে আমাদের ২০২০ নয়, ২০১২ সাল হওয়া উচিত। ২০১২ সাল শুরুর আগে অনেক বিশেষজ্ঞ বিশ্বের সমাপ্তির পূর্বাভাস দিয়েছিলেন।

স’ম্প্রতি বিজ্ঞানী পাওলো তাগালগায়ুনও এটি স’স্পর্কে টুইট ক’রেছেন, যা মুছে ফেলা হয়েছে। এই টুইট বার্তায় তিনি লি’খেছেন, জুলিয়ান ক্যালেন্ডার অনুসারে বিশ্ব প্রযু’ক্তিগতভাবে ২০১২ সালে বাস করছে।

গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডারে স্থা’নান্তরিত হওয়ার কারণে, প্রতি বছর প্রায় ১১ দিন হ্রাস হয়। গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডারের ২৬৮ বছরের (১৭৫২-২০২০) প্রতি বছর ১১ দিন হ্রাস হয়।

এই ১১ দিনগুলোকে ২৬৮ দিয়ে গুণ করলে, দিনগুলোর সংখ্যা ২,৯৪৮ দিন হয়ে যায়। ষ’ড়যন্ত্র তত্ত্ব অনুসারে, বিশ্ব সমাপ্ত হওয়ার সঠিক তারিখ ২১ জুন ২০২০।

এখন যদি আম’রা বছরের ৩৬৫ দিন দ্বারা মোট দিনের সংখ্যাকে বিভক্ত করি তবে ফলাফল আসবে ৮ বছর। অর্থাৎ, আম’রা আ’সলে ২০১২ সালের জুলিয়ান ক্যালেন্ডারে বাস করছি এবং এই তত্ত্বের স্রষ্টা এই বছরটিকে বিশ্বের শেষ হিসেবে দেখছেন। এ স’স্পর্কে মা’র্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা বলেছে, সুমেরীয়রা নিবিরু নামের একটি গ্রহ আবিষ্কারের পরে এই গল্পটি শুরু হয়েছিল।

ভবিষ্যদ্বাণী প্রণেতারা ২০০৩ সালের মে মাসে পৃথিবীতে আশ্চর্য কিছু ঘটার কথা বলেছিলেন। ২০০৩ সালের মে মাসে এই ভবিষ্যদ্বাণীটির কোনো প্র’ভাব না পড়ায় ২০১২ সালের ডিসেম্বরে পৃথিবীর ধ্বং’সের কথা বলা হয়েছিল, যা মায়া ক্যালেন্ডারের জীবনচক্রের উপর ভিত্তি করে ছিল।

সূত্র: কলকাতাটাইমস, আল-আরাবিয়া

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    gfgf

    © All rights reserved © 2018 worldinbangladesh.com