মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১, ১০:২৭ পূর্বাহ্ন

মুশফিক বল করতেন ইংল্যান্ডের সেরা পেসারের মতো!

মুশফিক বল করতেন ইংল্যান্ডের সেরা পেসারের মতো!

পেস বোলার ছিলেন মুশফিক, বল করতেন ইংল্যান্ডের সেরা পেসারের মতো!
বাংলাদেশের ক্রিকে’টে অন্যতম উইকেটরক্ষক কে প্রশ্ন করলেই মুশফিকুর রহিমের কথা বলবেন সবাই।

ক্যারিয়ারের শুরু থেকে প্রতিটি ম্যাচে একাগ্রচিত্তে উইকেট সামলে আসছেন তিনি।

কিন্ত ছোটখাটো গড়নের দেশের এই সেরা উইকেটরক্ষক যে ভালো বল করতে পারেন তা সবারই অজানা।

এই মুশফিকই একসময় ছিলেন রীতিমতো ফাস্ট বোলার।

ইংল্যান্ডের দীর্ঘকায় পেসার স্টিভ হার্মিসনের মতো হাত ঘুরিয়ে বল করতেন। পেস বোলার হতে বিকেএসপিতে এসে পরীক্ষাও দিয়েছিলেন।
মি. ডিপেন্ডেবলখ্যাত এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যানের বি’ষয়ে চমকে দেয়ার মতো এসব তথ্য দিয়েছেন জাতীয় দলের সেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। শনিবার রাতে এক ইনস্টাগ্রাম লাইভে তামিম তার সতীর্থ মুশফিককে বলেন, অনেকে এটা জানে না যে তুই (মুশফিক) পেস বোলিং করতি। একেবারে স্টিভ হার্মিসনের মতো হাত ঘুরিয়ে। তোর রানআপ ছিল ওই ৬ ফুট লম্বা স্টিভের চেয়েও বড়। আমার যতদূর মনে পড়ে, বিকেএসপির ২ নম্বর মাঠে অনূর্ধ্ব-১৫ এর এক প্র্যাকটিস ম্যাচে তুই পেস বোলিং করেছিলি।

জবাবে মুশফিক হেসে দিয়ে বলেন, ছোটবেলায় এলাকার ক্রিকে’টে বেশিরভাগ সময় পেস বোলিং করতাম। কিপিং সেভাবে করতাম না। পেস বোলার হওয়ার স্বপ্নে যখন বিভোর আমি, তখন বিকেএসপির কোচরা বলেছিলেন– এই উচ্চতা নিয়ে পেস বোলার হতে চাও, পাগল নাকি?’

তো পেস বোলার থেকে কীভাবে উইকেটরক্ষক হয়ে গেলেন মুশফিক?

তিনি বলেন, একদিন একটা ম্যাচে আমাদের উইকেটরক্ষক খেলতে পারছিলেন না। তিনি ইনজুরিতে পড়েছিলেন। সেই ম্যাচে আমি কিপিং করলাম, বেশ ভালো করলাম। এর পর থেকেই আমি কিপিং ভালোবেসে ফেললাম।

মুশফিক জানান, ক্রিকে’টের মতো ফুটবলও ভালো খেলতেন তিনি। বিকেএসপিতে ক্রিকেট ও ফুটবলে পরীক্ষা দিয়ে দুটোতেই টিকে যান। তবে বেশি ভালোবাসার কারণে ক্রিকেটকে বেছে নেন।

তিনি বলেন, লারা আমার খুব প্রিয় ব্যাটসম্যান, তার মতো ব্যাটিং করতে স্বপ্ন দেখতাম। আমার ভাইরাও সবাই ক্রিকেট খেলত। সব মিলিয়ে ক্রিকেটকেই পছন্দ করলাম।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 worldinbangladesh.com