শনিবার, ১০ এপ্রিল ২০২১, ০৮:১৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
আমার নিজস্ব কোনো থাকার জায়গা নেই, আমার কোনো বাড়ি নেই, এক কাঠা জমিও নেই: সুজন কড়া নজরদারিতে মামুনুল হক, নির্দেশনা পেলেই গ্রে’প্তার! পালাতক মামুনুল হক, মামুনুলকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না স্ত্রী’কে নিয়ে বেড়াতে গিয়ে আওয়ামী লীগ নেতাদের হাতে মামুনুল হক অ’বরুদ্ধ এইমাত্র পাওয়াঃ ভক্তদের কা’ন্নার সাগরে ভাসিয়ে কলকাতাকে বিশাল সমস্যায় ফেললেন সাকিব মতিঝিলে মোদিবি’রোধী বি’ক্ষো’ভ, ‘শি’শুবক্তা’ রফিকুল আ’টক অবশেষে আইপিএল বাদ দিয়ে দেশে সিরিজ খেলবেন সাকিব অবশেষে আইপিএল বাদ দিয়ে দেশে সিরিজ খেলবেন সাকিব অধিনায়কের নাম ঘোষণা করলো কলকাতা নাইট রাইডার্স তাসকিন, রুবেলকে বাদ দিয়ে যে পেসার নিয়ে ১ম ওয়ানডের জন্য শক্তিশালী দল ঘোষণা করলো ডোমিঙ্গ
বুড়ো বয়সেও দেখালেন বিশাল ঝড়, মনে হচ্ছে এ যেন সেই পুরনো আফতাব

বুড়ো বয়সেও দেখালেন বিশাল ঝড়, মনে হচ্ছে এ যেন সেই পুরনো আফতাব

খেলা ছেড়েছেন ১১ বছর আগে। সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে শরীরের যোগ হয়েছে মেদ। ফিটনেসের বেহাল দশার মাঝেও আফতাব আহমেদ দেখালেন ঝুলিতে রয়ে গেছে সহজাত কিছু স্কিল।

বাংলাদেশ লেজেন্ডসের হয়ে দাপুটে সব শটে ফিরিয়ে আনলেন পুরনো দিন। তাতে জুতসই একটা পূঁজিও পেয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ লেজেন্ডস। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকা লেজেন্ডসের দুই ওপেনারই শেষ পর্যন্ত টিকে শেষ করে দেন খেলা।

ভারতের রায়পুরে বাংলাদেশের করা ১৬০ রান ৪ বল আগে পেরিয়ে ১০ উইকেটে জিতেছে দক্ষিণ আফ্রিকা লেজেন্ডস। এতে শেষ হয়ে গেছে রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজে বাংলাদেশের সাবেকদের যাত্রা। হারলেও আফতাবের ২৪ বলে ৩৯ রান হয়ে থাকছে সান্ত্বনা।

রান তাড়ায় গিয়ে শুরুতে আব্দুর রাজ্জাকের স্পিন সামলাতে বেশ সমস্যা হচ্ছিল আন্ডু পুটিক ও ফন উইকের। তবে আরেক পাশ থেকে রান আসায় অতটা চাপ বাড়েনি। ব্যাটিংয়ের পর বোলিংয়েও দারুণ করেন আফতাব।

৪ ওভার থেকে দেন ২৪ রান। মোহাম্মদ রফিকের ৪ ওভার থেকে আসে ২৯। কিন্তু উইকেট নিতে পারেননি কেউই। বাকি বোলাররাও ছিলেন আলগা। পুটিক- ফন উইকের পক্ষে ম্যাচ বের করা হয়ে যায় সহজ। পুটিক ৫৪ বলে অপরাজিত থাকেন ৮২ রানে।ফন উইক করেন ৬১ বলে ৬৫ রান।

নিজেদের শেষ ম্যাচে টস হেরে ব্যাটিং পেয়েছিলেন বাংলাদেশের সাবেকরা। ধারাবাহিকতা রেখে এদিনও ভালো শুরু আনেন মোহাম্মদ নাজিমউদ্দিন। তবে আগের ম্যাচে ভালো করা মেহরাব হোসেন অপি এবার পারেননি। বরং বলা ভালো তাকে পারতে দেননি জন্টি রোডস। ৫১ বছর বয়েসেও দেখিয়েছেন ক্ষিপ্রতা। পয়েন্টে এক হাত দিয়ে বল ধরে সরাসরি থ্রোতে রান আউট করে বিদায় করেন অপিকে।

২৯ রানে প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এরপর নাজিমউদ্দিনকে নিয়ে এগুনো শুরু আফতাবের। ৮ম ওভারে গিয়ে দলের ৫০ রানে থান্ডা শাবালালার বলে শেষ হয় নাজিমের ৩৩ বলে ৩২ রানের ইনিংস।

এরপর সাবেকদের ইনিংস এগিয়েছে মূলত আফতাব আর হান্নান সরকারের ব্যাটে। আফতাব ছিলেন স্বাভাবিকভাবেই আগ্রাসী। আলবেরো পিটারসেনকে দুটি আর শাবালালার বলে মেরেছেন এক ছক্কা। ২৪ বলেই আফতাব করে যান ৩৯ রান। তিনি আরও কিছুটা সময় ক্রিজে থাকলে বাংলাদেশের রান নিশ্চিতভাবেই হতো অনেক বড়।

আফতাব-হান্নান জুটিতে আসে ৬১ রান। আফতাবের পর বেশিক্ষণ টেকেননি হান্নানও। ২ চার , ১ ছক্কায় তিনি থামেন ৩১ বলে ৩৬ রান করে। শেষ দিকে কেউই আর রান বাড়ানোর কাজটা করতে না পারায় ১৬০ রানে থামে বাংলাদেশ।

প্রসঙ্গত, সড়ক পথের নিরাপত্তা নিশ্চিতের সচেতনা বাড়াতে সাবেক তারকাদের নিয়ে আয়োজিত হয়েছে এই টুর্নামেন্টে। লিগ পর্বের খেলা শেষে এবার ভারত, শ্রীলঙ্কা ইংল্যান্ড আর দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেকরা উঠেছে সেমিফাইনালে।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 worldinbangladesh.com