সোমবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:৫৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
মাত্র পাওয়াঃ অপেক্ষার পরেও ছাত্র ছাত্রীদের বড় দুঃসংবাদ দিল শিক্ষা মন্ত্রণালয় ২০২১ সালের এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়ার সময় জানালেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সময় জানালেন মন্ত্রী এই মাত্র পাওয়া- পেছাল ২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষা এই মাত্র পাওয়া- ভন্ড দেওয়ানবাগী মা’রা গেছেন স্মিথ মালানদের ছাড়িয়ে তামিম লিটনের বিশ্বরেকর্ড যা নেই আর কারো ২০২০ সালে যেসব আলেমে দ্বীন ইন্তেকাল করেছেন ২২ বছর ধরে তাহাজ্জুদ ছাড়ি নাই, প্রতিদিন ৭০-৮০ রাকাত নফল নামায পড়ি: শামীম ওসমান মাশরাফি বিন মর্তুজাকে আবারো জাতীয় দলে ফেরানোর দাবিতে সিলেটে মানববন্ধন করলো ভক্তরা ২০২০ সালে ওয়ানডে ক্রিকেটে সেরা ব্যাটসম্যান লিটন দাস। দ্বিতীয় স্থানেই তামিম ইকবাল
মুক্তিযু’দ্ধে হিন্দু সম্প্রদা’য়ের মানুষ চ’রমোনাই মাদ্রাসায় আশ্রয় নিয়েছিল: শায়েখে চ’রমোনাই

মুক্তিযু’দ্ধে হিন্দু সম্প্রদা’য়ের মানুষ চ’রমোনাই মাদ্রাসায় আশ্রয় নিয়েছিল: শায়েখে চ’রমোনাই

মুক্তিযু’দ্ধে হিন্দু সম্প্রদা’য়ের মানুষ চ’রমোনাই মাদ্রাসায় আশ্রয় নিয়েছিল বলে দাবি করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সিনিয়র নায়েবে আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ ফয়জুল করীম (শায়েখে চ’রমোনাই)।

তিনি বলেন, মুক্তিযু’দ্ধে মু’সলমানদের অবস্থান কি ছিল, প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধারা তা ভালো করেই জানেন। নতুন করে সেটা প্রমাণ করতে বক্তব্য বিবৃতি জরুরী নয়। তবে যারা ইসলামকে বিকৃত করার লক্ষ্যে মুক্তিযু’দ্ধবি’রোধী রাজাকারদের পরিচয় তুলে ধরতে ইসলামের সিম্বলগুলো ব্যবহার করেন, তাদেরকে একটি বার্তা দিতে চাই, আপনারা সতর্ক হোন।

নিজেদের রাজাকার তকমা ঢেকে রাখতে ইসলামকে কলঙ্কিত করার চেষ্টা করবেন না, এর ফলাফল কখনো শুভ হবে না।

একইস’ঙ্গে আমি বাংলাদেশ স’রকারকে বলব, যারা মুক্তিযু’দ্ধভিত্তিক বিভিন্ন গল্প-সিনেমা-নাটক এবং ত’থ্যচিত্রে রাজাকারদের পরিচয় তুলে ধরতে ইসলামী সিম্বল ব্যবহার করে সেসব নির্মাতাদের সংশোধ’নের চেষ্টা করুন এবং আপনার বাবার ইজ্জত রক্ষা করুন।

শায়খে চ’রমোনাই আরো বলেন, মুক্তিযু’দ্ধের নির্মাণ ও পরিচালনায় ইসলাম ছিল প্রাধান্য বিস্তারকারী এক শ’ক্তি। মুক্তিযু’দ্ধকে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র ‘আল্লাহর পথে জিহাদ’ বলে পরিচয় করে দিয়েছে। বেতার কেন্দ্রের সেই ঘোষণার প্রেক্ষিতে মাঠ পর্যায়ে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রেরণাই ছিল ইসলাম।

এমনকি ৯নং সেক্টর কমান্ডার মেজর এম এ জলিল আমার দাদাজান মাওলানা সৈয়দ এছহাকের (রহ.) কাছে নিয়মিত যাতায়াত করতেন, দোয়া নিতেন এবং মুক্তিযু’দ্ধ পরিচালনার ক্ষেত্রে পরামর্শ নিতেন।

শুধু তাই নয় চ’রমোনাইসহ আশপাশের হিন্দু সম্প্রদা’য়ের লোকেরা নিজেদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে আমাদের চ’রমোনাই মাদ্রাসায় আশ্রয় নিয়েছিলেন এবং নিরাপদ ছিলেন।

আমার দাদাজান মুক্তিযোদ্ধাদের পাশাপাশি মাদ্রাসায় আশ্রয় নেয়া হিন্দু সম্প্রদা’য়ের লোকদের থাকা ও খাওয়ার ব্যবস্থা করেছিলেন। এতসব বাস্তবতার পরেও যেসব ইতিহাস বিকৃতিকারীরা মুক্তিযু’দ্ধের স’ঙ্গে ইসলামের বৈপরীত্য জাহির করতে চান, তারা নিজেদের বিবেকের স’ঙ্গে গাদ্দারী করছেন।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ছাত্র যুব বি’ষয়ক সম্পাদক ও বরিশাল জে’লা সভাপতি মুফতি সৈয়দ এছহাক মুহাম্মাদ আবুল খায়েরের সভাপতিত্বে, বরিশাল মহানগর সেক্রেটারী মাওলানা জাকারিয়া হামিদী এবং জে’লা সেক্রেটারি উপাধ্যক্ষ মাওলানা সিরাজুল ইসলামের যৌথ সঞ্চালনায় র‌্যালী পূর্ব সমাবেশটি অনুষ্ঠিত হয়।

বুধবার (১৬ ডিসেম্বর) দুপুরে বরিশাল নগরীর ফজলুল হক এভিনিউতে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ বরিশাল জে’লা ও মহানগর কর্তৃক আয়োজিত বিজয় র‌্যালী পূর্ব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ ফয়জুল করীম এসব কথা বলেন।

এতে আরো বক্তব্য রাখেন ইসলামী যুব আন্দোলনের সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা মুহাম্মাদ নেছার উদ্দিন, বরিশাল সিটি নির্বাচনে হাতপাখার মেয়রপ্রার্থী হাফেজ মাও. ওবায়দুর রহমান মাহবুব,

ইসলামী শ্র’মিক আন্দোলনের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা মাওলানা সৈয়দ নাছির আহমাদ কাওছার, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় শুরা সদস্য নওমু’সলিম ডা. সিরাজুল ইসলাম সিরাজী, ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় প্রচার ও আন্তর্জাতিক সম্পাদক কে এম শরীয়াতুল্লাহসহ জে’লা ও মহানগর নেতারা।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 worldinbangladesh.com